অদল-বদল হতেই পারে দলের স্বার্থেই, মত জাপা নেতাদের

বারবার অদল বদলের ঘটনা জাতীয় পার্টিতে নতুন নয় বলে জানিয়েছেন দলের শীর্ষ নেতারা। একই সঙ্গে জি এম কাদেরকে সরিয়ে দেয়াকে স্বাভাবিক হিসেবেই দেখছেন তারা। তারা মনে করেন, দলের স্বার্থেই অদল-বদল হতে পারে।
তবে রাজনৈতিক বিশ্লেষকদের মতে, বারবার শীর্ষ পদে এমন হুটহাট রদবদল দলটিকে সাধারণ মানুষের তামাশার পাত্রে পরিণত করেছে। এছাড়া, এর মাধ্যমে দলটি জনগণের কাছে গ্রহণযোগ্যতা হারিয়েছে বলেও মন্তব্য তাদের।
একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনের ঠিক আগ মুহূর্তে হঠাৎ করেই রুহুল আমিন হাওলাদারকে মহাসচিবের পদ থেকে সরিয়ে নতুন মহাসচিব করা হয় মশিউর রহমান রাঙ্গাকে। এর রেশ কাটতে না কাটতেই হুসেইন মুহম্মদ এরশাদ ছোট ভাই জিএম কাদেরকে তার উত্তরসূরি করার ঘোষণা দেন।
কিন্তু মাস তিনেকের মাথায় আবারো সিদ্ধান্তে পরিবর্তন এনে নাটকীয়তার জন্ম দিলো দলটি। এবার জিএম কাদেরকে শুধু উত্তরসূরি নয় দায়িত্বে অবহেলার অভিযোগ তুলে সরিয়ে দেয়া হলো দলের কো চেয়ারম্যানের পদ থেকেও। সব মিলিয়ে জাতি আবারো নাটকীয়তার জন্ম দিল জাতীয় পার্টির।
এই বিষয়ে দলের নেতা-কর্মীদের দাবি, পার্টিকে সচল রাখতেই এই সিদ্ধান্ত নিয়েছেন চেয়ারম্যান হুসেইন মুহম্মদ এরশাদ।
তবে, ভিন্ন মত রাজনৈতিক বিশ্লেষকদের। তাদের মতে, বারবার দলের শীর্ষ পদে রদবদল এনে দলটির স্বৈরতান্ত্রিক মনোভাবই প্রকাশ পাচ্ছে জাতির কাছে।
ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের রাষ্ট্রবিজ্ঞান বিভাগের ড. গোবিন্দ চক্রবর্তী মনে করেন, রাজনৈতিক দল হিসেবে জাতীয় পার্টি অনেক আগেই সাধারণ মানুষের আস্থা হারিয়েছে। এবার সংসদে বিরোধী দলের ভূমিকা নিয়েও দলটি জনগণের আস্থা সংকটে ভুগবে।

Add a Comment

Your email address will not be published. Required fields are marked *